শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১, ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
◈ নওগাঁর সমতলের ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠীর সম্প্রদায়ের মধ্যে উন্নত জাতের ক্রসব্রীড বকনা ও দানাদার খাদ্য বিতরণ ◈ নোয়াখালীতে যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যা! কারাগারে স্বামী ◈ রাজশাহী মেট্রোতে মোট আটক ২৭ ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার ◈ আজ জাতীয় ভোটার দিবস ◈ রাজশাহী জেলা (ডিবি) পুলিশের অভিযানে চার কেজি গাঁজাসহ আটক দুই ◈ মহাদেবপুরে বিয়ের প্রলোভনে প্রেমিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ: গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান থেকে বর গ্রেফতার ◈ চলে গেলেন সাংবাদিক ফয়সাল আজম অপু’র পিতা আলহাজ্ব মহফিল উদ্দিন মাষ্টার ◈ রাজশাহীতে আমাদের কন্ঠের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ◈ রাজশাহী তানোরে পাঁচন্দর ইউপি ভবন উদ্বোধন ◈ কোম্পানিগঞ্জে সাংবাদিক মুজাক্কিরের কবর জিয়ারত করেছেন বিএমএসএফ নেতৃবৃন্দ

কার্গো বিমান চাইছেন সবজি রপ্তানিকারকরা, চাহিদা ৪৩ দেশে

প্রকাশিত : ১০:১৪ পূর্বাহ্ণ, ৫ মে ২০২০ মঙ্গলবার ১৫১ বার পঠিত

দৈনিক সত্যের সন্ধান নিউজ ডেক্স, :

সবজি ও ফলের চাহিদা আসছে ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশ থেকে। তাই আবার পণ্য রপ্তানি শুরু করতে চান এ খাতের উদ্যোক্তারা। তাঁরা বলছেন, ‘আগের বছরের তুলনায় এ বছর সবজি রপ্তানি ভালোই হচ্ছিল। স্বাভাবিক সময়ে প্রতিদিন গড়ে ২৫০ থেকে ৩০০ টন সবজি রপ্তানি হতো। এখনো আমদানিকারক ৪৩টি দেশের মধ্যে প্রায় সব কটিরই চাহিদা আসছে। কিন্তু ফ্লাইট বন্ধ থাকায় আমরা দিতে পারছি না। তবে এসব পণ্য রপ্তানির জন্য আলাদা কার্গো বিমান চালু হলে রপ্তানি করা সম্ভব হবে।’ এ জন্য বিমানসহ বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে আলোচনাও করছেন বলে রপ্তানিকারকরা জানিয়েছেন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আবার রপ্তানিতে ফিরতে পারলে দেশের উদ্বৃত্ত সবজি আর নষ্ট হবে না, কৃষক বেঁচে যাবেন এবং দেশের বৈদেশিক মুদ্রাও আয় হবে।

এক্সপোর্ট প্রমোশন ব্যুরোর (ইপিবি) তথ্য অনুসারে জুলাই থেকে মার্চ এই ৯ মাসে মোট ৪৪টি দেশে সবজি রপ্তানি হয়েছে ১৪ কোটি ৬৭ লাখ ১৪ হাজার মার্কিন ডলার বা প্রায় এক হাজার ২৫০ কোটি টাকার। সে হিসাবে প্রতি মাসে সবজি রপ্তানি হয়েছে এক কোটি ৬৩ লাখ কোটি ডলার বা ১৩৮ কোটি ৫৬ লাখ টাকার। দৈনিক হিসাবে যা প্রায় পাঁচ কোটি টাকা। গত বছর মোট ১০ কোটি ডলারের সমপরিমাণ সবজি রপ্তানি হলেও চলতি বছর লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ১৩ কোটি ডলারের। আর ৯ মাসে রপ্তানির লক্ষ্য ছিল ৯ কোটি ৬০ লাখ ডলারের। সে হিসাবে মার্চ পর্যন্ত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৫০ শতাংশ বেশি সবজি রপ্তানি হয়েছে। আর গত বছরের তুলনায় ৭৯ শতাংশ বেশি। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি হয়েছে যুক্তরাজ্যে—তিন কোটি ১৫ লাখ ডলার। তারপরই আরব আমিরাত—এক কোটি ১৭ লাখ ডলার। ব্যবসায়ীদের তথ্য মতে, ইউরোপের বাজারগুলোতে প্রতিদিন পাঁচ থেকে সাত টন শুধু কাঁচা মরিচই রপ্তানি হতো।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ ফ্রুটস ভেজিটেবল অ্যান্ড অ্যালাইড প্রডাক্টস এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘চাহিদা বেশি থাকলে স্বাভাবিক সময়ে দেশ থেকে দৈনিক এক হাজার টন শাক-সবজি ও ফলমূল রপ্তানি হয়। তবে গড়ে প্রতিদিন ৩০০ থেকে ৪০০ টন রপ্তানি করা যায়। এর মধ্যে বেশির ভাগই শাক-সবজি। প্রতিদিন গড়ে ২৫০ থেকে ৩০০ টন শাক-সবজি রপ্তানি হতো। এখন সম্পূর্ণই বন্ধ। তবে খাদ্যপণ্য হওয়ায় আমদানিকারক দেশগুলোর চাহিদা সব সময়ই ছিল। আমরা দিতে পারিনি। আমরা সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে বিমানের একটি কার্গো ফ্লাইট চালুর চেষ্টা করছি। এ ছাড়া অন্যান্য সংস্থার সঙ্গেও আলোচনা হচ্ছে। কেউ অপারেশনে গেলে, কোন দেশে কী পরিমাণ পণ্য পাঠাব আমরা সে তালিকা দেব। প্রাথমিকভাবে ইউরোপের দেশগুলোতে সবজি রপ্তানির চেষ্টা করছি।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক সত্যের সন্ধান'কে জানাতে ই-মেইল করুন- sattersandhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক সত্যের সন্ধান'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক সত্যের সন্ধান | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT