মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০২১, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
◈ রাজশাহীর মোহনপুরে লকডাউন বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত ◈ দেশের দুর্দিনে মাস্ক হাতে রাস্তায় রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাব ◈ আটোয়ারীতে লকডাউন কার্যকরে উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের যৌথ মহড়া ◈ রমজানের শুরুতেই বেগুনের বাজারে আগুন! ◈ মহাদেবপুরে ২ সন্তানের জননীকে ধর্ষণের অভিযোগে হাজী শরিফের বিরুদ্ধে মামলা ◈ সুবর্ণচরের বিএমএসএফ এর উদ্যোগে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান ◈ প্রশাসনকে ম্যানেজ করে কৃষি জমি ও বনজফলজ গাছ যাচ্ছে ইভাটার পেটে ◈ লকডাউনে আমি ঘরে থাকতে চাই আমাকে খাবার দিন ◈ তানোর পৌরসভার প্যানেল মেয়র নির্বাচন ◈ নওগাঁয় কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে কথিত প্রেমিক কারাগারে

মৃত্যুর আগে সব সম্পত্তি ওয়াকফ করে দেওয়া জায়েজ?

প্রকাশিত : ০৭:১৮ পূর্বাহ্ণ, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শুক্রবার ৩৮২ বার পঠিত

দৈনিক সত্যের সন্ধান নিউজ ডেক্স, :

প্রশ্ন: আমার বাবার এক বন্ধু বড় বিত্তশালী। ধর্ম-কর্ম পালনে খুব সচেষ্ট। দ্বীন-দরদি ও শিক্ষানুরাগী। তিনি বিয়ে-শাদি করেননি। বয়স ষাটের কাছাকাছি। তার বাবা-মা কেউ বেঁচে নেই। ভাইবোনও নেই। আত্মীয় বলতে আছে শুধু দুই চাচা, এক ফুফু, এক মামা ও এক খালা।

নিকটাত্মীয় কেউ না থাকায় তিনি অসিয়ত করেছেন, মৃত্যুর পর তার সব সম্পত্তি যেন তার গ্রামের মাদরাসার জন্য ওয়াকফ করে দেওয়া হয়।

জানার বিষয় হলো, তার অসিয়তটি কি শুদ্ধ হয়েছে? বিভিন্নজন বলছেন, এক তৃতীয়াংশের বেশি অসিয়ত করা জায়েজ নেই। বিষয়টি সঠিকভাবে জানানোর অনুরোধ রইল।

উত্তর: অসিয়তের ব্যাপারে শরীয়তের কিছু মূলনীতি আছে। তার একটি হলো অসিয়তকারীর যদি কোনো ওয়ারিস থাকে, তাহলে সে তার মালিকানাধীন এক তৃতীয়াংশ সম্পদের ক্ষেত্রেই কেবল অসিয়ত সীমিত রাখবে। এরচেয়ে বেশি অসিয়ত করবে না।

সাহাবি সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস (রা.) বলেন, একবার আমি অসুস্থ হলাম তখন নবী (সা.) আমাকে দেখতে আসলেন। আমি বললাম, হে আল্লাহর রাসুল! …আমি অসিয়ত করে যেতে চাচ্ছি! আমার শুধু একটি মেয়ে আছে। সুতরাং আমি কি আমার অর্ধেক সম্পদের অসিয়ত করতে পারবো? আল্লাহর রাসুল বললেন, অর্ধেক তো অনেক! আমি তখন বললাম, তাহলে এক তৃতীয়াংশ? আল্লাহর রাসুল বললেন এক তৃতীয়াংশ হতে পারে, তবে এক তৃতীয়াংশও কম না! তিনি বলেন, এরপর মানুষ এক তৃতীয়াংশ অসিয়ত করতে লাগল, আর তা বৈধ হল। (বুখরি, হাদিস: ২৭৪৪)

উল্লেখ্য, ওয়ারিস বলতে শুধু মা-বাবা, ছেলে-মেয়ে স্ত্রী- এরাই নয়; বরং চাচা-ফুফু, মামা-খালারাও ক্ষেত্রবিশেষে ওয়ারিস হয়ে থাকেন। তাই এই প্রকারের কোনো ওয়ারিস জীবিত থাকাকালীন এক তৃতীয়াংশের বেশি অসিয়ত করলে, তার অনুমোদন ছাড়া সেটা কার্যকর হবে না।

সুতরাং প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে ওই ব্যক্তি মারা যাওয়ার পর তার ওয়ারিস হিসেবে যারা জীবিত থাকবে, তাদের অনুমোদন ছাড়া তার সম্পত্তির এক তৃতীয়াংশের অতিরিক্তের ক্ষেত্রে অসিয়ত কার্যকর হবে না।

(সূত্র: উমদাতুল কারি: ১৪/৩৫; ফাতহুল কাদির: ৭/৩৫২; কিতাবুল আছল: ৫/৪২৯; রদ্দুল মুহতার: ৪/৩৯৮; ইলাউস সুনান: ১৮/৩১২)

প্রশ্নটি করেছেন: রফিক সওদাগর, উত্তরখান, ঢাকা

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক সত্যের সন্ধান'কে জানাতে ই-মেইল করুন- sattersandhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক সত্যের সন্ধান'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক সত্যের সন্ধান | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT